Logo
শিরেোনাম ::
ভারত -বাংলাদেশের মধ্যে নতুন সম্পর্ক স্থাপন স্থগিত পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে ডুয়েট শিক্ষার্থীরা মধ্যরাতে ৪০ টা ঘুমের ওষুধ খেয়ে ধরলা নদীতে ঝাঁপ দিল রাজু ডুয়েটে সকল পরীক্ষা স্থগিত, আবারও অনলাইনে ক্লাস শুরু ২৪ মে এর আগে নিয়মিত পরীক্ষা নয় -শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষার্থীদের ভ্যাক্সিন দিয়ে শিক্ষা কার্যক্রম পুরোদমে চালুকরা হোক শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন দিয়ে, শিক্ষা কার্যক্রম পুরোদমে চালুকরার দাবি ডুয়েট ছাত্রলীগ সভাপতির আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে চেয়ারম্যান ফরিদ উদ্দিনের শ্রদ্ধাঞ্জলি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কোম্পানীগঞ্জ ছাত্র কণ্ঠের শ্রদ্ধাঞ্জলি রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালনের সময় আহত পুলিশ সদস্য বদিউজ্জামান জনির দায়িত্ববোধ ও দেশপ্রেমে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত

বসুন্ধরাকে সমর্থন দিতে আবারও মাঠে কিংসের চাঁদপুর জোন।

কাউসার আলম, চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধি / ১৭৫ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

কাউসার আলম/ চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ ফুটবল মানেই সমর্থকদের মাঝে এক বাড়তি উত্তেজনা। সেটা বাংলাদেশের দর্শকদের ক্ষেত্রে হলে তো কথাই নেই। কালের বিবর্তনে ফুটবলের সেই আগের ঐতিহ্য হারিয়ে গেছে। তবুও ফুটবল খেলা হলেও এখনও দর্শকদের মাঝে বাড়তি উত্তেজনা কাজ করে। সেটা হোক মাঠে বসে নিজের প্রিয় দলকে সমর্থন দেয়ার ক্ষেত্রে কিংবা প্রতিপক্ষের সমর্থকদের সঙ্গে কথার লড়াইয়ে।

টানা চার জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়ে নামা বসুন্ধরা কিংস যথারীতি মেলে ধরল আক্রমণাত্মক ফুটবলের পসরা। উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে যাওয়া মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবও চেষ্টা করল পাল্টা জবাব দেওয়ার, কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে বসুন্ধরা কিংসের আক্রমণের তোড়ে উড়ে গেল তাদের প্রতিরোধ।

দাপুটে জয় তুলে নিল অস্কার ব্রুসনের দল।
কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ স্টেডিয়ামে সোমবার ৪-১ গোলে জেতা বসুন্ধরা কিংস টানা পাঁচ জয়ে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে। পাঁচ ম্যাচে দ্বিতীয় হারের তেতো স্বাদ পাওয়া মোহামেডানের পয়েন্ট ৫।

মোহামেডানের রক্ষণে চাপ ধরে রেখে দশম মিনিটে এগিয়ে যায় বসুন্ধরা কিংস। জোনাথন দি সিলভেইরা ফের্নান্দেসের ক্রসে আর্জেন্টাইন বংশোদ্ভূত চিলিয়ান ফরোয়ার্ড রাউল অস্কার বেসেরা হেডে জাল খুঁজে নেন।

পিছিয়ে পড়া মোহামেডান গোল শোধে মরিয়া হয়ে ওঠে। আগের ম্যাচে আবাহনী লিমিটেডের বিপক্ষে ২-২ ড্র করা শন লেনের দল ২২তম মিনিটে পেয়েও যায় কাঙ্ক্ষিত গোল। মোহাম্মদ আতিকুজ্জামানের থ্রো ইন আনিসুর রহমান জিকো ফেরালেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ডি-বক্সের জটলার ভেতর থেকে দারুণ টোকায় লক্ষ্যভেদ করেন আবিওলা নুরাত।
৪৪তম মিনিটে সুলেমানে দিয়াবাতের শট ক্রসবারের উপরের দিকে লেগে বেরিয়ে গেলে মোহামেডানের এগিয়ে যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ নষ্ট হয়। প্রথমার্ধের শেষ দিকে রবসন দি সিলভা রবিনিয়ো নিখুঁত চিপে লক্ষ্যভেদ করে ফের এগিয়ে নেন বসুন্ধরা কিংসকে। ৬ গোল নিয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে প্রতিআক্রমণ থেকে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেয় ২০১৮-১৯ মৌসুমের লিগ চ্যাম্পিয়নরা। বিশ্বনাথ ঘোষকে পাস বাড়িয়ে এক ছুটে ডি-বক্সে ঢুকে যান ফের্নান্দেস। বিশ্বনাথের ফিরতি আড়াআড়ি ক্রস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে মাপা শটে লক্ষ্যভেদ করেন ফের্নান্দেসই। লিগে প্রথম গোল পেলেন ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ড।

৮১তম মিনিটে বেসেরার স্পট কিক পোস্টের ভেতরের দিকে লেগে জালে জড়ালে পঞ্চম জয় নিশ্চিত হয়ে যায় বসুন্ধরা কিংসের। ডি-বক্সে চিলির এই ফরোয়ার্ডকে জাফর ইকবাল ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি।

করোনার মাঝেও এদিন স্টেডিয়ামে ছিল দর্শকদের উপচে পরা ভিড়। নিজের প্রিয় দলকে সমর্থন দিতে মাঠে এসেছিলেন অসংখ্য দর্শক। তবে অন্য সবার চেয়ে একটু আলাদাভাবে নজর কেড়েছিলেন বসুন্ধরার চাঁদপুর জোনের সমর্থকরা। গতম্যাচের মত এই ম্যাচেও প্রায় শতাধিক সমর্থক নিয়ে মাঠে খেলা দেখতে এসেছিলেন তাঁরা।

বসুন্ধরা কিংস ফ্যানস চাঁদপুর জোনের প্রধান সমন্বয়ক সাইফুল চৌধুরীর নেতৃত্বে খেলা দেখতে এসেছিলেন এসব কিংস সমর্থকরা। প্রিয় দলের জয় দেখতে পেরে বেশ উচ্ছ্বসিত বলে জানিয়েন বেশ কয়েকজন সমর্থক। কিংসকে সমর্থন দেয়ার মধ্য দিয়ে চাঁদপুরের ফুটবল ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে চান তারা। ইঞ্জিনিয়ার্স নিউজ ২৪ এর সঙ্গে আলাপকালে গ্রুপটির প্রধান সমন্বয়ক সাইফুল চৌধুরী জানান, তাঁরা এভাবেই ফুটবলকে সমর্থন দিতে চান।

বসুন্ধরা কিংস যেভাবে পেশাদারিত্বের সাথে নান্দনিক ফুটবল উপহার দিচ্ছে তাতে এই দলের সমর্থন দেয়া একজন সমর্থক হিসাবে নৈতিক দায়িত্ব। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে ফুটবল এখন একটি সম্ভাবনাময় অবস্থায় পৌছেছে, এই সম্ভাবনা সৃষ্টির পেছনে বসুন্ধরা কিংসের অবদান অপরিসীম। আমরা মাঠে খেলা দেখতে আসার মাধ্যমে তরুণ প্রজন্মকে ক্রীড়াপ্রেমী করে তুলতে চাই যাতে একইসাথে তারা মাদক থেকে দূরে থাকতে পারে, আপনি লক্ষ্য করবেন চাঁদপুর থেকে আসা প্রায় সকল সমর্থকই তরুণ। আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই বসুন্ধরা ক্লাবের প্রেসিডেন্ট জনাব ইমরুল হাসান ভাইকে এবং ফ্যানস আহবায়ক জনাব জসিম উদ্দিন ভাইকে আমাদেরকে সার্বিক সহযোগিতার জন্য। আমি মনে করি ক্লাব ফুটবল যত নান্দনিক এবং মানসম্পন্ন হবে; ফুটবলে বাংলাদেশ তত ভালো করব। তাই আমরা সবসময় বসুন্ধরা কিংস ও বাংলাদেশ ফুটবলের অগ্রযাত্রায় উৎসাহ প্রদান করার জন্য মাঠে এসে সমর্থন দিবো, “ইনশআল্লাহ”।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

পুরাতন খবর

সেহরির শেষ সময় - ভোর ৫:০৭
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:০৩
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:১২
  • ১২:১৫
  • ৪:২১
  • ৬:০৩
  • ৭:১৭
  • ৬:২৪
Theme Created By ThemesDealer.Com