Logo
শিরেোনাম ::
প্লাস্টিক বর্জ্য সামুদ্রিক ও জলজ জীবনের সবচেয়ে বড় হুমকি কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কাশিনগর বাজারে নিরাপত্তার স্বার্থে সিসি ক্যামেরা উদ্বোধন কবিতাঃ “একটি স্বচ্ছ হৃদয়” ডুয়েট উপাচার্যের সাথে ‘করিমগঞ্জ প্রতিবন্ধী স্কুল’ এর প্রতিনিধিবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ ‘করিমগঞ্জ প্রতিবন্ধী স্কুল’ এর পক্ষ থেকে ডুয়েট উপাচার্যকে মাস্ক উপহার কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে আন্তঃজেলা গ্রিলকাটা চক্রের ৬ সদস্য গ্রেফতার । মুক্তিযোদ্ধাদের লাঞ্ছিতকারীরা আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী-বীর মুক্তিযোদ্ধা সামশুদ্দীন আহমদ পরিবেশ দিবস উপলক্ষে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আয়োজন করেছে ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় ভলেন্টিয়ার সার্ভিস ক্লাব ক্লাস-পরীক্ষার দাবিতে সিলেট টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে ছাত্রলীগ নেতা রনি হকের জন্মদিন পালিত

অপহরণ চেষ্টা মামলার আসামীদের বাঁচাতে জোরপূর্বক আপোষনামায় স্বাক্ষর

রিপোর্টারের নাম / ৭৭ বার
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ অপহরণ চেষ্টা মামলার আসামীদের বাঁচাতে জোরপূর্বক মামলার বাদীনি দিলুয়ারা বেগম থেকে আপোষনামা এবং খালি স্টাম্পে স্বাক্ষর নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। এই ন্যাক্কারজনক ঘটনাটি ঘটেছে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এবং সেক্রেটারির অনুপস্থিতিতে গত ৮/১০/২০ইং বৃহস্পতিবার আদালত পাড়ার জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যালয়ে। প্রত্যক্ষদর্শী এবং মামলার বাদীর সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার মামলার বাদীনি দিলুয়ারা বেগম এবং তার স্বামী আশরাফ উদ্দীন একটি পারিবারিক মামলার হাজিরা দিতে ১ম অতিরিক্ত জেলা দায়রাজজ আদালতে হাজির হলে,মাননীয় অতিরিক্ত ১ম জেলা দায়রাজজ এর সম্মুখ হতে এডভোকেট ইমরুল হক মেননসহ কয়েকজন যুবক অপহরণ চেষ্টা মামলার বাদীনি দিলুয়ারা বেগমকে আদালত থেকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হলে বিজ্ঞ ১ম অতিরিক্ত জেলা দায়রাজজ এর বাঁধার মুখে পড়ে ব্যর্থ হয়। মামলার বাদীনি দিলুয়ারা বেগম আদালত হতে বের হওয়ার সময় তাকে পুনরায় উল্লেখিত ব্যাক্তিগণ জোরপূর্বক জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যালয়ে টানাহেঁচড়া করে নিয়ে আসতে সক্ষম হয়। এডভোকেট ইমরুল হক মেনন ও তার বাহিনী অপহরণ চেষ্টা মামলার বাদীনি দিলুয়ারা বেগমকে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এবং সেক্রেটারির অনুপস্থিতিতে বিভিন্ন হুমকি ধুমকি দিয়ে তার মামলা প্রত্যাহার এবং আপোষনামা সহ কয়েকটি খালি স্টাম্পে জোরপূর্বক স্বাক্ষর দিতে বাধ্য করে ।স্বাক্ষর না দিলে আইনজীবী সমিতির প্যাডে এজাহার লিখে কোতোয়ালি থানায় চালান করে দেওয়ারও এবং সাংবাদিক ডেকে টিভি-মিডিয়ায় টাউট/প্রতারক বলে প্রচার করে দেওয়ার হুমকি প্রদান করে। এতে মামলার বাদীনি দিলুয়ারা বেগম ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে স্বাক্ষর দিতে বাধ্য হয়।বর্তমান বাংলাদেশে অপহরণ, ধর্ষণ এর বিরুদ্ধে যখন সরকার প্রশাসন কঠোর অবস্থান নিয়েছে। ঠিক তখনই চট্টগ্রাম আদালত পাড়ায় ঘটে গেল এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনা।

উল্লেখ্য যে, গত ৪/০৯/২০ইং তারিখে আনুমানিক রাত ৮ঘটিকায় মোহাম্মদ রাশেদ এর নেতৃত্বে ৪জন যুবক মামলার বাদীনি দিলুয়ারা বেগম এর কন্যা জান্নাতুল ফেরদৌস রায়সাকে জোরপূর্বক অপহরণ করার চেষ্টা করে।এবং, অপহরণে ব্যর্থ হয়ে মারধর করে পালিয়ে যায়।
উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভিকটিমের মা দিলুয়ারা বেগম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল ৫নং এ একটি মামলা দায়ের করেন।যা নারী ও শিশু মামলা নং ২০১/২০২০।

বাদীনি দিলুয়ারা বেগম engineers news 24 এর মাধ্যমে ঘটনার সাথে জড়িতদের এবং ঘটনার সত্যতা প্রমাণে সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে শনাক্ত করে বিচারের আওতায়. আনার জোরদাবি জানিয়েছেন
এবং জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সেক্রেটারিসহ বিজ্ঞ আইনজীবীদের নিকট এর সুষ্ঠু বিচার প্রার্থনা করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com