Logo
শিরেোনাম ::
‘পাইলট ট্রেনিং-৬ এয়ারক্রাফট’ স্থাপন করলো ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম মহানগর সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাসির উদ্দিন নাসিরের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি বাবা দিবসে বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবার কাছে কন্যার খোলা চিঠি শাহজাদপুরে কোটি টাকায় ২ কিলো রাস্তায় মাটি ভরাট -১৫ হাজার মানুষের চলাচলে চরম দূর্ভোগ করোনা রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃসবুজ মানবাধিকার ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ সিলেট বিভাগীয় কমিটি গঠ কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে ভেজাল বিটুমিন তৈরি কারখানায় অভিযান মালিক সহ ২জনকে কারাদন্ড এ্যাডভোকেট এ এম মোয়াজ্জেম হোসেন’র মৃত্যু বার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের শ্রদ্ধা নিবেদন পটিয়া জিরি ইউনিয়নে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারের পাশে কেন্দ্রীয় নেতা বদিউল আলম প্লাস্টিক বর্জ্য সামুদ্রিক ও জলজ জীবনের সবচেয়ে বড় হুমকি

ধর্ষণ এবং যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে সবিক

মাসরুফ রাফিদ প্রচ্ছদ, সরকারি বিজ্ঞান কলেজ প্রতিনিধি / ১১১ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২০

সরকারি বিজ্ঞান কলেজ প্রতিনিধিঃ- সারাদেশে চলমান একের পর এক অনাকাঙ্ক্ষিত যৌন হয়রানী এবং ধর্ষণের প্রতিবাদে এবং এর সাথে জড়িত সকল অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে প্রতিবাদ মিছিল করেছে সরকারি বিজ্ঞান কলেজের প্রাক্তন এবং বর্তমান শিক্ষার্থীরা। গত ৭ অক্টোবর বুধবার শাহবাগ টিএসসি এলাকায় প্রতিবাদ মিছিল পরিচালিত হয়।

চলমান একটির পর একটি ধর্ষণ, এমসি কলেজ, খাগড়াছড়ি এবং নোয়াখালী সহ অন্যান্য ধর্ষণ সাধারণ শিক্ষার্থীদের বিবেককে প্রশ্নবিদ্ধ করে। এই প্রশাসনের আদলে আমরা আসলে এর বিচার হচ্ছে। নোয়াখালীর ঘটনা ৩২ দিন পর খবর প্রকাশিত হয়। এটাই কি আসলে স্বাধীন দেশের কাম্য ছিল।সাধারণ মানুষের মনে একটাই প্রশ্ন এজন্য কি স্বাধীনতার যুদ্ধে ২লক্ষ মা বোন তার ইজ্জত হারিয়েছে??

দেশের জনগণ এবং সাধারণ শিক্ষার্থীদের বিশ্বাস স্টেটের এরূপ ন্যাশনাল ক্রাইসিসে এধরনের অপরাধের সাথে যুক্ত সকলের শাস্তি নিশ্চিত করা গেলেই দেশ প্রকৃতভাবে তার স্বাধীনতা ফিরে পাবে।

শিক্ষার্থীদের দাবী অনতিবিলম্বে দেশের প্রতিটি যৌন হয়রানী এবং ধর্ষণের সাথে জড়িত সকলের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড নিশ্চিত করতে হবে।

এছাড়া অন্যান্য দাবিগুলো হলো- প্রমাণিত ধর্ষকের ক্ষেত্রে আইনি প্রক্রিয়া ছাড়াই জনসম্মুখে ফাঁসির বিধান কার্যকর করা, ইতোপূর্বে ঘটে যাওয়া প্রতিটা ধর্ষণের বিচার কাজ দ্রুত শেষ করে ফাঁসিতে ঝুলানো, অপরাধীর প্রশ্রয়দাতাকে চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ, ধর্ষণ প্রতিরোধে প্রতিটা জেলায় আলাদা টাস্কফোর্স গঠন করা ইত্যাদি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com