Logo
শিরেোনাম ::
করোনা রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃসবুজ মানবাধিকার ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ সিলেট বিভাগীয় কমিটি গঠ কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে ভেজাল বিটুমিন তৈরি কারখানায় অভিযান মালিক সহ ২জনকে কারাদন্ড এ্যাডভোকেট এ এম মোয়াজ্জেম হোসেন’র মৃত্যু বার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের শ্রদ্ধা নিবেদন পটিয়া জিরি ইউনিয়নে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারের পাশে কেন্দ্রীয় নেতা বদিউল আলম প্লাস্টিক বর্জ্য সামুদ্রিক ও জলজ জীবনের সবচেয়ে বড় হুমকি কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কাশিনগর বাজারে নিরাপত্তার স্বার্থে সিসি ক্যামেরা উদ্বোধন কবিতাঃ “একটি স্বচ্ছ হৃদয়” ডুয়েট উপাচার্যের সাথে ‘করিমগঞ্জ প্রতিবন্ধী স্কুল’ এর প্রতিনিধিবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ ‘করিমগঞ্জ প্রতিবন্ধী স্কুল’ এর পক্ষ থেকে ডুয়েট উপাচার্যকে মাস্ক উপহার

চকরিয়ায় ডিলারের ঘরে এক ট্রাক অবৈধ সার

রিয়াজ কালাম, পেকুয়া উপজেলা প্রতিনিধি / ৭১ বার
আপডেট সময় : বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

পেকুয়া উপজেলা প্রতিনিধিঃ- চকরিয়ায় খুচরা সার বিক্রেতার ঘরে এক ট্রাক অবৈধ সার মজুদ করা হয়েছে। এমনই অভিযোগ উঠেছে ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড ডিলার বিজয় এন্টারপ্রাইজের বিরুদ্ধে। গভীর রাতে গোপনে সার ডিলারের বসত বাড়িতে এক ট্রাক অবৈধ সার মজুদ রাখার খবর পাওয়া যায়।

শনিবার দুপুরে সরেজমিনে যাচাই করতে ডুলাহাজারা নতুন পাড়ায় বিজয় এন্টারপ্রাইজের মালিক বিজয় নিশান দেব’এর বাড়িতে গিয়ে ঘটনার সত্যতা মিলে। অনুসন্ধানে বিজয়ের বসতবাড়িতে প্রবেশ পথে বড় ট্রাক অবস্থানের চিহ্ন পাওয়া যায়। ওই বাড়ির একটি বড় আকৃতির কক্ষ ভর্তি সারের বস্তা লক্ষ্য করা গেছে। কক্ষটি আবদ্ধ থাকায় কৌশলে দরজার ফাঁক দিয়ে আলোকচিত্র ধারণে মাধ্যমে প্রমাণ সংগ্রহ করা হয়। অনুমান করা হয় সেখানে নুুুন্যতম এক ট্রাকের অধিক সারের বস্তা রয়েছে। এসময় বিজয় নিশান দেব বাড়িতে নেই বলে জানান পরিবারের লোকজন। এছাড়াও বিগত বছর খানেক আগে তার গোডাউনে অবৈধভাবে মজুদ রাখা ও পাচারকালে চার’শ বস্তা সার জব্দ করে প্রশাসন। চকরিয়া উপজেলা প্রশাসন গোপন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে সারগুলো জব্দ করে। এসময় তাকে মুচলেকা ও জরিমানা করা হয়। অবৈধ মজুদদারিতে বিজয় নিশান দেব সম্প্রতি আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অপরদিকে ডুলাহাজারা বিজয় এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী বিজয় নিশান দেবের বিরুদ্ধে পার্বত্য এলাকায় সার পাচার, অবৈধ সার মজুদ, নিন্মমানের সার মিশ্রিতকরে উচ্চ দামে বিক্রি ইত্যাদির অভিযোগ রয়েছে। সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে প্রবেশ সড়ক ডুলাহাজারা বাজারে বিজয়ের সার-বিজের ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান। সে সুযোগে পাহাড়ি এলাকার লোক জনকে ধুঁকা দিয়ে প্রতিনিয়ত নিন্মমানের সার বিক্রি করে যাচ্ছে। প্রতি বস্তা ৩-৪শ টাকা দামের জৈব সার মিশ্রিত করে বস্তা প্রতি টিএসপি’র দাম ১২-১৩শ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এভাবেই প্রতারিত হচ্ছে সাধারণ কৃষক। এসব বিষয়ে জানতে বিজয় নিশান দের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হয়। তিনি জানান, অবৈধ সারের ব্যবসা তিনি করেন না এবং কোনপ্রকার সারে মিশ্রণ দেন না। তার বসতবাড়িতে ট্রাক যোগে এনে কোন সার মজুদ করেননি বলেও দাবী করেন বিজয় নিশান। এ ব্যপারে চকরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এস.এম নাসিম হোসেন জানান, বসতবাড়িতে সার মজুদ রাখার কোন খবর আমরা ইতিপূর্বে পাইনি। এখন এ বিষয়টি জানলাম। ঘটনার তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com