Logo
শিরেোনাম ::
সেশনজট নিরসনে শিক্ষার্থীদের সাথে বশেমুরবিপ্রবি’র ভিসির আলোচনা সভা ডুয়েট-বিসিএসআইআর’র মধ্যে গবেষণা চুক্তি স্বাক্ষরিত ভেটেরিনারিয়ানদের নিয়ে কটুক্তি করার প্রতিবাদে পবিপ্রবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত প্রবাসী ছোট ভাই কে না পেয়ে বড় ভাই কে মারধর ও হত্যার হুমকি তানোরে লক্ষিত সুফলভোগী মানুষের মাঝে ৫৮ টি বকনা গরু বিতরণ কোছাক কতৃক সাহিত্য প্রকাশনা “স্বপ্ন” ম্যাগাজিনের মোড়ক উন্মোচন উদ্বোধন করেন এড. মাহফুজুর রহমান ডুয়েট সিএসই বিভাগের নবীন শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত রামগঞ্জ উপজেলার ৪ নং ইছাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতির মৃত্যু প্রবাসীর স্ত্রীকে ইলেকট্রনিক্স ব্যবসায়ীর প্রাননাশের হুমকি কাটাখালী পৌর মেয়র আব্বাসের বঙ্গবন্ধু কে নিয়ে কটুক্তির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

এমপিদের বলয় ভাঙ্গার উদ্যোগ আওয়ামী লীগে

শেখ আরিয়ান রুবেল, ঢাকা মহানগর উত্তর প্রতিনিধি / ২৩৬ বার
আপডেট সময় : বুধবার, ১২ আগস্ট, ২০২০

ঢাকা মহানগর উত্তর প্রতিনিধিঃ- দলীয় নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে যেসব সংসদ সদস্য (এমপি) আত্মীয় বা অন্যদলের লোকজন নিয়ে বলয় তৈরি করে নিজ এলাকায় রাজনীতি করছেন তাদের ব্যাপারে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর হতে পারেন বলে জানিয়েছেন দলটির নেতাকর্মীরা। আওয়ামী লীগের একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা ইন্জিনিয়ার নিউজকে বলেন, দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা মনে করেন বলয় কেন্দ্রিক রাজনীতি আওয়ামী লীগকে দুর্বল করে তুলছে। দলীয় রাজনীতিকে শক্তিশালী করতে হলে বলয়ভিত্তিক রাজনীতির চর্চা বন্ধ করতে হবে। আওয়ামী লীগকে নয়, যারা ব্যক্তিকে শক্তিশালী করার রাজনীতি করছেন তাদের ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ব্যক্তিগত রাগ, ক্ষোভ ও আক্রোশের কারণে আদর্শিক-ত্যাগী নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে রাজনীতি করার যে নোংরা প্র্যাকটিস চালু হয়েছে সর্বত্র তা বন্ধ করতে হবে।
আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর এক সদস্য বলেন, কোনো কোনো জেলার এমপিরা দলীয় নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে ব্যক্তিগত বলয় তৈরি করে রাজনীতি করছেন তা খুঁজে বের করতে একটি গোয়েন্দা সংস্থাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সেই সংস্থাকে আরও বলা হয়েছে, নিজের এলাকায় দলীয় কোন এমপির অবস্থা ভালো-খারাপ তাও তদন্ত করে প্রতিবেদন তৈরি করতে।

প্রধানমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ এক নেতা বলেন, বিভিন্ন এলাকায় দলীয় এমপিদের বিরুদ্ধে নানা সময়ে অভিযোগ উঠে আসে। দলের নন এমন লোকজন নিয়ে এমপিদের ওঠাবসা, রাজনীতি এমন অভিযোগও প্রতিনিয়তই আসছে। নিজস্ব বলয় তৈরির অভিযোগ বিভিন্ন এলাকার প্রবীণ রাজনীতিকরাই উত্থাপন করেন। এরই অংশ হিসেবে খোঁজখবর নেওয়া শুরু হয়েছে। দল দুর্বল করে রাজনীতি করার সুযোগ কাউকে দেওয়া হবে না। তাই বলয় ভাঙার ব্যবস্থা গ্রহণ করার উদ্যোগ নিয়েছেন দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা।

তার আগে তদন্ত করে চিহ্নিত করতে চান সেসব এমপিদের। তিনি বলেন, দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিভিন্ন এলাকা থেকে অন্তত শ পাঁচেক লিখিত অভিযোগ জমা আছে অনেক এমপির নামে। অভিযোগ আছে জেলা, থানা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতাদের বিরুদ্ধেও।
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এক সদস্য বলেন, করোনাকালীন মহামারীতে বিভিন্ন এলাকায় এমপিদের আধিপত্যে ঐক্যবদ্ধভাবে ত্রাণ সহায়তায় অংশ নিতে পারেনি আওয়ামী লীগ। ফলে পর্যাপ্ত ত্রাণ সহায়তা দেওয়ার সক্ষমতা থাকলেও দলের পক্ষে তা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। এর একমাত্র কারণ দলের ভেতরের অনৈক্য। তিনি বলেন, দলকে ঐক্যবদ্ধ রাখা সম্ভব না হলে দলীয় সরকার ক্ষমতায় থাকলেও দল সেভাবে উপকৃত হচ্ছে না। সভাপতিমণ্ডলীর ঐ সদস্য আরও বলেন, করোনাকালে ত্রাণ চুরির যেসব অভিযোগ দলীয় নেতা ও জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে উঠেছে সেগুলোও দলের অনৈক্যের কারণে হয়েছে। তিনি বলেন, ত্রাণ চুরির ঘটনার চেয়ে এখানে ব্যক্তিগত আক্রোশের শিকার হয়েছেন অনেকেই। এসব বিষয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমলে নিয়েছেন। তাই সর্বপ্রথম ক্ষমতার অপব্যবহার ও বলয় ভাঙার উদ্যোগ গ্রহণ করে রাজনীতিতে ঐক্য ফিরিয়ে আনতে চান দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ দেশ বলেন, দল দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার কারণে সংগঠনের সর্বস্তরে এক ধরনের অসন্তোষ-অনৈক্য দেখা দিয়েছে। ত্যাগীরা দূরে সরে যাচ্ছে। স্বার্থান্বেষী মহল ফ্রন্টে চলে আসছে। যার ফলে সংগঠন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তিনি বলেন, এর সবই বৈষয়িক ব্যাপারে। ফলে সর্বস্তরে রাজনৈতিক দুরবস্থা বিরাজ করছে। এমপিদের আধিপত্যও কোথাও কোথাও চরম আকার ধারণ করেছে। এগুলো দূর করা সম্ভব না হলে সংগঠনের দুরবস্থা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে না।

দলের সভাপতিমণ্ডলীর আরেক সদস্য আবদুর রাজ্জাক বলেন, করোনাকালীন দুর্যোগ কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হলেই দলকে শক্তিশালী করার বিভিন্ন প্যাকেজ প্রোগ্রাম হাতে নেওয়া হবে। তিনি বলেন, সর্বস্তরে দলীয় ঐক্য ফিরিয়ে আনার কাজ শুরু করা হবে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন, ক্ষমতার অপব্যবহার যারাই করবেন তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নীতি-আদর্শ ভুলে যারা নিজের আখের গোছানোর রাজনীতি করবেন তাদের জায়গা আওয়ামী লীগে হবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com
P