Logo
শিরেোনাম ::
‘পাইলট ট্রেনিং-৬ এয়ারক্রাফট’ স্থাপন করলো ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম মহানগর সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাসির উদ্দিন নাসিরের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি বাবা দিবসে বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবার কাছে কন্যার খোলা চিঠি শাহজাদপুরে কোটি টাকায় ২ কিলো রাস্তায় মাটি ভরাট -১৫ হাজার মানুষের চলাচলে চরম দূর্ভোগ করোনা রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃসবুজ মানবাধিকার ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ সিলেট বিভাগীয় কমিটি গঠ কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে ভেজাল বিটুমিন তৈরি কারখানায় অভিযান মালিক সহ ২জনকে কারাদন্ড এ্যাডভোকেট এ এম মোয়াজ্জেম হোসেন’র মৃত্যু বার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের শ্রদ্ধা নিবেদন পটিয়া জিরি ইউনিয়নে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারের পাশে কেন্দ্রীয় নেতা বদিউল আলম প্লাস্টিক বর্জ্য সামুদ্রিক ও জলজ জীবনের সবচেয়ে বড় হুমকি

গোপালগঞ্জে ভুতুরে বিদ্যুৎ বিলের হয়রানির শিকার বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

শেখ আব্দুর রহিম, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি / ৮৩ বার
আপডেট সময় : বুধবার, ২৪ জুন, ২০২০

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ চলতি করোনা মহামারিতে গোপালগঞ্জে ভুতুরে বিদ্যুৎ বিলে হয়রানির শিকার হচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি)পাঁচ সহস্রাধিক শিক্ষার্থী ।

জেলার বিদ্যুৎ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লি.-এর মিটার রিডিংয়ের তুলনায় বিলের অসঙ্গতিপূর্ণ কার্যক্রমে অতিষ্ঠ হয়ে পরেছে তারা ।মিটার রিডিংয়ের তুলনায় কোথাও দ্বিগুণ আবার কোথাও তিনগুণের বিদ্যুৎ বিল ধার্য করা হয়েছে বলে অভিযোগ তাদের । তাদের দাবি বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ মনগড়া বিদ্যুৎ বিল তৈরি করেছে । পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় আমাদের বসবাসরত মেস গুলো ফাঁকা থাকা সত্ত্বেও বাড়ির মালিকেরা সম্পূর্ণ বাড়ি ভাড়া ও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য তাড়া দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে বশেমুরবিপ্রবির পরিবেশ দুর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী সাদমান শুভ বলেন, আমাদের ফ্লাটে এমাসে শুধু ২ই টা ফ্যান আর লাইট জ্বলেছে বলে বাড়ির মালিক জানান । কিন্তু মাস শেষে দেখি বিল পেপারে ২৩২৩ টাকা বিল আসছে । এদিকে মিটার রিডিংয়ের সাথে বিল পেপারের কোন মিল নাই ।
একই ব্যাপারে দুঃখ প্রকাশের পাশাপাশি দ্রুত এই সমস্যার সঠিক সমাধানের দাবিও জানান তিনি ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লি.-এর তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী তরিকুল ইসলাম জানান, মিটারের সাথে বিদ্যুৎ বিলের অসঙ্গতি ব্যাপারটি খুবই দুঃখজনক । করোনা মহামারিতে আমাদের অনেক রিডারের রিডিং জনিত ত্রুটিতে এমনটি হয়েছে । তবে এই সমস্যার ব্যাপারে যে কোন গ্রাহক যথাযথ প্রমাণ সহ জেলা অফিসে যোগাযোগ করলে বিষয়টির সমাধান করে দেওয়া হবে ।

উল্লেখ্য, বশেমুরবিপ্রবিতে আবাসন সমস্যা থাকায় প্রায় ৮০ভাগ শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিভিন্ন এলাকার মেস ও ফ্লাট ভাড়া নিয়ে থাকেন ।গত মার্চ মাসের মাঝামাঝি বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় বর্তমানে সবাই বাড়িতে অবস্থান করছেন ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com