Logo
শিরেোনাম ::
ডুয়েট ছাত্রলীগ এর প্রচার সম্পাদকের চিকিৎসা বাবদ ৫০ হাজার টাকা দিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী চকবাজার ওয়ার্ড উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিলেন যারা তানোরে হাসপাতালে এ্যাম্বুলেন্স প্রদান BYFHA আয়োজিত Dengue Fever Eradication Campaign 2021 মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে অস্বচ্ছল সংস্কৃতিসেবীদের মধ্যে আর্থিক অনুদান বিতরণ কোম্পানীগঞ্জ বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সহ সভাপতি হলেন চেরাগ আলী ছাত্রলীগের উপর হামলা করায় অবশেষে প্রায় এক বছর পর যুবলীগ নেতা মঞ্জুর(৪০) গ্রেপ্তার পরকীয়া সম্পর্ক ছিন্ন করতে চাওয়ায় খুন শাহজাদপুরে বাবা-মায়ের কবরের পাশেই চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন স্বপন এমপি আবারও অবরুদ্ধ বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্য

রাজশাহীর তিনটি এলাকা ‘ইয়োলো’ জোনে

মোঃ বাপ্পী রহমান, রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি / ৭৮ বার
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৬ জুন, ২০২০

রাজশাহী প্রতিনিধি : করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যার উপর ভিত্তি করে জোনভিত্তিক বিভাজনে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনসহ জেলার তানোর ও চারঘাট উপজেলাকে ইয়োলো জোন হিসেবে চিহ্নিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় কার্যালয়। আর সিভিল সার্জন বলছে, আক্রান্তের সংখ্যার উপর ভিত্তি করে পুরো রাজশাহী জেলা গ্রীন জোনের মধ্যে পড়েছে। তবে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলে কোনো কোনো এলাকা ইয়োলো জোনের মধ্যেও পড়ছে।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্যমতে, রাজশাহী জেলায় গত সোমবার পর্যন্ত মোট ১৪৫ জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সিটি কর্পোরেশন এলাকায় এ পর্যন্ত মোট সংক্রমিত হয়েছে ৪৯ জন, বাঘা উপজেলায় ১১ জন, চারঘাটে ১৪ জন, পুঠিয়ায় ১১ জন, দুর্গাপুরে ৫ জন, বাগমারা ১০ জন মোহনপুরে ১৯ জন, তানোরে ১৭ জন, পবায় ৮ জন ও গোদাগাড়ীতে এক জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের গাইডলাইন অনুযায়ী, প্রতি লাখে ৩-৯ জন আক্রান্ত হলে সে এলাকা ইয়েলো জোন হিসেবে চিহ্নিত হবে। সে হিসেবে জেলার আক্রান্তের পরিসংখ্যান অনুযায়ী জোনভিত্তিক বিভাজনে ‘ইয়েলো’ জোনের মধ্যে পড়েছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এলাকা এবং জেলার তানোর ও চারঘাট উপজেলা।

মঙ্গলবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রাজশাহী বিভাগীয় পরিচালক ডা. গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গাইডলাইন অনুযায়ী প্রতি ১ লাখে ৩-৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেলে ওই এলাকা ইয়েলো জোন হিসেবে গণ্য হবে। এই হিসেব অনুযায়ী রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এলাকা, তানোর ও চারঘাট উপজেলা ইয়েলো জোনের মধ্যে পড়েছে। জেলার অন্যান্য উপজেলা পড়ছে গ্রীন জোনের মধ্যে। এই তিন এলাকাকে ইয়েলো জোন ও উপজেলার অন্যান্য এলাকাকে গ্রীন জোন চিহ্নিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে সোমবার প্রতিবেদন পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. এনামুল হক জানান, রাজশাহীর পুরো জেলা গ্রীন জোনের মধ্যে পড়বে। তবে কিছু এলাকা ইয়োলো জোনের মধ্যেও পড়ছে। এটা উঠানামা করছে। যেদিন কোনো এলাকায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে তখন সেই এলাকা ইয়োলো জোনের মধ্যে পড়ছে। আবার সুস্থ হয়ে ফিরে গেলে তখন সেই এলাকা আর ইয়োলো জোনের মধ্যে থাকছে না। এইভাবে গ্রীন ও ইয়োলো জনের মধ্যে উঠানামা করছে।

তিনি জানান, এ পর্যন্ত রাজশাহী সিটি ও জেলায় ১৪৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু এরই মধ্যে অনেকেই সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন। যেমন তানোরে মোট আক্রান্ত হয়েছিল ১৭ জন। কিন্তু ১২ জনই এখন সুস্থ। চারঘাটে করোনা রোগীর সংখ্যা ১৪। তবে সুস্থ হয়েছেন দুই জন। কাজেই জোনভিত্তিক ভাগ এভাবে করা ঠিক হবে না।

তিনি আরো জানান, রাজশাহীতে জনসংখ্যা ৩০ লাখ। এরমধ্যে কমপক্ষে ৩০০’র অধিক হলে তবেই সে এলাকা ইয়েলো জোন হিসেবে চিহ্নিত করা যাবে। যদিও প্রতিদিনই পরিসংখ্যান পরিবর্তন হচ্ছে। সংক্রমণের হার বাড়ছে। আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। সবাইকেই সতর্ক থাকতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com