Logo
শিরেোনাম ::
গাউছিয়া অটো রাইচ মিল মালিকের পক্ষ থেকে পটিয়া মুন্সেফ বাজারে পণ্য বিক্রয় কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন গরীব,দুস্থ ও জেলেদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় ডুয়েটের ১৯ শিক্ষক বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় পবিপ্রবির ২৩ শিক্ষক তানোর উপজেলা বাসীকে শারদীয় দূর্গা পূজার আগাম শুভেচ্ছা জানিয়েছেন যুবলীগ নেতা মঈনুদ্দীন সোনার বাংলা সমাজকল্যাণ সংস্থার নতুন সভাপতি মোঃ আবুল হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামরুল হাসান শ্রীমঙ্গলে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ভানুর জয় অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির জন্য মা ইলিশ রক্ষার বিকল্প নেই: হোসাইন ডুয়েটে ২০২০-২১ সেশনের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী জামাত বিএনপি কর্মী ফয়জুর রহমান

রাস্তার আশায় দিশেহারা মাধবপুর থানার মাঝিশ্বাইল গ্রামবাসী

মোঃ রাসেল ইসলাম, ঢাকা মোহাম্মদপুর প্রতিনিধি / ৫২০ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ১৫ জুন, ২০২০

ঢাকা মোহাম্মদপুর প্রতিনিধিঃ মাধবপুর থানার ৮ নং বুল্লা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের মাঝিশ্বাইল গ্রামের মানুষ রাস্তার স্বপ্ন দেখতে দেখতে নিরাশ হয়ে পরেছে।
এলাকাবাসী জানান- বুল্লা থেকে মাঝিশ্বাইল প্রায় ১.৫ কিলোমিটার রাস্তা বর্ষাকালে বৃষ্টি হলে পানির নিচে তলিয়ে যায় এবং চারদিকে শুরু হয় রাস্তার ভাঙ্গন। তখন যানবাহন দূরের কথা, হেঁটে চলাচলও বিপদজ্জনক হয়ে পড়ে। যোগাযোগের একমাত্র রাস্তাটি পাকা করার দাবি দীর্ঘদিনের । স্থানীয় নেতা মন্ত্রী থেকে জেলা প্রশাসন সকলের কাছে বারংবার রাস্তা নিয়ে দরবার করলেও হয়নি কোন কাজ । ভোটের সময় নেতা – মন্ত্রীদের আশ্বাস ছাড়া কোন কিছুই মেলেনি।


এ বিষয়ে স্থানীয় গ্রামবাসী এম ডি রানা আহমেদ,সুজন মিয়া, মিন্টু মিয়া ও নজরুল ইসলাম জানান, এই রাস্তার উপর দিয়ে প্রতিদিন গড়ে কয়েক হাজার মানুষ যাতায়াত করে । মাঝিশ্বাইল থেকে বুল্লা পর্যন্ত প্রায় ১.৫ কিলোমিটার রাস্তাটি স্বাধীনতার পর থেকে কাঁচা রয়েছে । পাকা রাস্তার জন্য প্রশাসন থেকে নেতা – মন্ত্রীদের কাছেও বারংবার দরবার করেছেন । তবে আশ্বাস ছাড়া কোন কিছুই মেলেনি ।
এমনি সময় কোন রকমে যাতায়াত করা গেলে ও গ্রামবাসীদের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে পড়ে বর্ষাকাল এলে । অল্প বৃষ্টিতেই হাঁটু সমান কাঁদা জমে যায় রাস্তায় । ওই সময় রাস্তা দিয়ে ঢুকতে চায়না অ্যাম্বুলেন্স থেকে অন্যান্য গাড়ি । ফলে গ্রাম্য চিকিৎসার উপর ভরসা করে বাড়িতেই কোনরকমে চিকিৎসা করতে হয় অসুস্থ রোগীর । এর ফলে অনেক সময় অসুস্থ রোগীর মৃত্যু প্রর্যন্ত হয়।
গ্রামবাসীর দাবি, রাস্তাটি পাকা হলে মাঝিশ্বাইল গ্রামবাসীসহ অসংখ্য এলাকার কয়েক হাজার মানুষের কষ্ট দূর হবে। আশেপাশের সব রাস্তা পাকা হলেও এ রাস্তাটি পাকা করার কোনো উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না। এ রাস্তাটিই এলাকার ছাত্র-ছাত্রীদের এবং গ্রামবাসীদের যাতায়াতের একমাত্র পথ। মাঝিশ্বাইল গ্রামবাসীসহ অসংখ্য মানুষ প্রতিদিন এই রাস্তা দিয়ে চলাফেরা করে। বর্ষাকালে শিক্ষার্থীদের কষ্টের সীমা থাকে না। রাস্তাটির বেহাল দশার কারণে ছাত্র-ছাত্রীদের ঝরে পরার ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে।মাঝিশ্বাইল গ্রামের স্কুল,কলেজ,মাদ্রাসার ছাত্র-ছাত্রীদের স্কুলে যাওয়া আশা করতে জীবনের ঝুঁকি নিতে হয়।বেহাল রাস্তার উপর দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে মাঝে মধ্যেই ঘটে বড় বড় দুর্ঘটনা ।
এলাকার একমাত্র রাস্তাটি পাকা করার দাবি নিয়ে নেতা মন্ত্রী থেকে প্রশাসনের কাছে একাধিকবার দরবার করেছেন গ্রামবাসীরা । তবে আশ্বাস ছাড়া কিছুই মেলেনি । এখনো মাটির রাস্তায় পড়েনি পিচের প্রলেপ। স্বাধীনতার পর থেকে এমন দুর্দশার মধ্যেই যোগাযোগের একমাত্র রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করছেন ৮নং বুল্লা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মাঝিশ্বইল গ্রামবাসী ।
মাঝিশ্বাইল গ্রামবাসীর প্রাণের দাবি , রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার ও পাকা রাস্তা করে জন দুর্ভোগের হাত থেকে গ্রামবাসী যেন রক্ষা পায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com