Logo
শিরেোনাম ::
প্লাস্টিক বর্জ্য সামুদ্রিক ও জলজ জীবনের সবচেয়ে বড় হুমকি কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কাশিনগর বাজারে নিরাপত্তার স্বার্থে সিসি ক্যামেরা উদ্বোধন কবিতাঃ “একটি স্বচ্ছ হৃদয়” ডুয়েট উপাচার্যের সাথে ‘করিমগঞ্জ প্রতিবন্ধী স্কুল’ এর প্রতিনিধিবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ ‘করিমগঞ্জ প্রতিবন্ধী স্কুল’ এর পক্ষ থেকে ডুয়েট উপাচার্যকে মাস্ক উপহার কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে আন্তঃজেলা গ্রিলকাটা চক্রের ৬ সদস্য গ্রেফতার । মুক্তিযোদ্ধাদের লাঞ্ছিতকারীরা আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী-বীর মুক্তিযোদ্ধা সামশুদ্দীন আহমদ পরিবেশ দিবস উপলক্ষে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আয়োজন করেছে ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় ভলেন্টিয়ার সার্ভিস ক্লাব ক্লাস-পরীক্ষার দাবিতে সিলেট টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে ছাত্রলীগ নেতা রনি হকের জন্মদিন পালিত

করোনার ঝুকি নিয়ে চুয়াডাঙ্গার মার্কেটগুলোতে অবাধে চলছে কেনাকাটা

সাদেকুর - চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি / ৭৫ বার
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১২ মে, ২০২০

করোনার ঝুকি নিয়ে চুয়াডাঙ্গার মার্কেটগুলোতে চলছে কেনাকাটা

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: করোনার ঝুকি নিয়ে চুয়াডাঙ্গার মার্কেটগুলোতে চলচ্ছে কেনাকাটার ধুম। স্বাস্থ্যবিধি বা সামাজিক দুরুত্ব মানার বালাই নেই। ফলে কোভিড-১৯ সংক্রমণের অশংঙ্কা দেখা দিতে পারে।
চুয়াডাঙ্গা শহরের বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে, চালু হওয়া বিপণীবিতানগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে দোকানি ও কর্মচারীরা ক্রেতাদের পণ্য দেখাচ্ছেন। মার্কেটের প্রবেশর সময় ক্রেতারা নিয়ম-নীতি মানছে না। মার্কেটগুলোতে পুলিশ, সেনাবাহিনী ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট টহল দিচ্ছে। এ সময় ক্রেতারা কিছুটা দূরত্ব মানলেও পরক্ষণেই আবার একই অবস্থা সৃষ্টি হচ্ছে।

সমবায় নিউ মার্কেটে দেখা গেছে, অনেকে ক্রেতাই মাস্ক পরিধান ছাড়াই ঘোরাফেরা ও কেনাকাটা করছেন। মার্কেটের সামনে বা কোথায় হাত ধোয়ার ব্যবস্থা থাকলেও অনেকে তা ব্যবহার করছে না। এছাড়া সামাজিক দূরত্ব তো নেই।

পবিবার নিয়ে প্রিন্স প্লাজা মার্কেটে আসা ফাতেমা ইয়াসমিন জানান, সকালের দিকে মার্কেটে লোক সংখ্যা কম থাকবে বলে পরিবার নিয়ে কেনাকাটা করতে আসি। কিন্ত যে অবস্থা তাতে পরিবার নিয়ে কেনাকাটা করা অসম্ভব।
তাছাড়া অনেকেই স্বাস্থ্যবিধি মানছেনা।
গার্মেন্টস ব্যবসায়ীরা জানান, সরকার যে ঘোষণা দিয়েছে, তা কিছুটা হলেও আমাদের সংকট কাটাতে সহায়তা করবে। সরকারের বিধিনিষেধ মেনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চালু করেছি। দোকানে প্রবেশের ক্ষেত্রে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারসহ মাস্ক পরিধান ব্যতীত কোনো ক্রেতা প্রবেশ করতে পারবেন না। পাশাপাশি কর্মচারীরা সবাই স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করছেন। সামাজিক ও শারীরিক দূরুত্ব মেনেই দোকানে বেচাকেনা করা হচ্ছে।

জেলা দোকান মালিক সমিতির সভাপতি আসাদুল হোসেন জোয়ার্দ্দার লেমন জানান, দোকান মালিকদের নিয়ে সভা করে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান খোলার আশ্বাস দিয়েছেন এবং সেই মতো কাজ করেছেন। প্রতিটি দোকানে দোকানে গিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেছি এবং একাধিক কর্মী দিয়ে ক্রেতাদের হাতে ও পায়ে জীবাণুনাশক দেওয়া হচ্ছে। আমরা সরকারের সব নির্দেশনা মেনে মার্কেট চালু রাখতে চাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com