Logo
শিরেোনাম ::
‘পাইলট ট্রেনিং-৬ এয়ারক্রাফট’ স্থাপন করলো ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম মহানগর সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাসির উদ্দিন নাসিরের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি বাবা দিবসে বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবার কাছে কন্যার খোলা চিঠি শাহজাদপুরে কোটি টাকায় ২ কিলো রাস্তায় মাটি ভরাট -১৫ হাজার মানুষের চলাচলে চরম দূর্ভোগ করোনা রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃসবুজ মানবাধিকার ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ সিলেট বিভাগীয় কমিটি গঠ কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে ভেজাল বিটুমিন তৈরি কারখানায় অভিযান মালিক সহ ২জনকে কারাদন্ড এ্যাডভোকেট এ এম মোয়াজ্জেম হোসেন’র মৃত্যু বার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের শ্রদ্ধা নিবেদন পটিয়া জিরি ইউনিয়নে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারের পাশে কেন্দ্রীয় নেতা বদিউল আলম প্লাস্টিক বর্জ্য সামুদ্রিক ও জলজ জীবনের সবচেয়ে বড় হুমকি

ইউপি মেম্বারের বিচার অমান্য করে স্থানীয় দাঙ্গাবাজ দ্বারা ঘর ডাকাতি

চট্টগ্রাম পাঁচলাইশ থানা প্রতিনিধি / ২৮৮ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ জুন, ২০২০

চট্টগ্রাম পাঁচলাইশ থানা প্রতিনিধি ঃ মহেশখালী উপজেলার ৬ নং ওয়ার্ড় কুতুবজোম ইউনিয়নের দৈলার পাড়া গ্রামের আবদুস সালামের পুত্র জনাব মকছুদ মিয়া নামে ব্যক্তির ঘর ডাকাতি। দৈলার পাড়া ৬নং ওয়ার্ড় আজম খাঁন (আজম হা) ও তার তিন পুত্রদের নিয়ে ঘরডাকাতি ও লুটপাট করে।
এমনকি মিথ্যা মামলা দিয়ে মানুষকে হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

দীর্ঘবছর যাবত স্বামী মকছুদ মিয়া ও তার স্ত্রী তৈয়ুবা (রিনা) আকতার দুইজনের সংসার খুব সুখেই ছিলো।
হঠাৎ করে বিচ্ছেদের পথ দেখা দেয়। জনাব মকছুদ মিয়া ও তার স্ত্রীর রিনা আকতার দুই সন্তান নিয়ে সংসার করতে আর ইচ্ছুক নয়। পরিবারে প্রায় সময় ঝগড়া লেগে থাকে। দিন যত যায় ঘটনা তত বাড়তে থাকে। একসময় তারা দুইজন দৈলার পাড়া ৬ নং ওয়ার্ড়ের স্থানীয় মেম্বার জনাব সৈয়দ কবির কাছে ডিভোর্সের বিচার নিয়ে আসে।
প্রথমত মেম্বাবের সুষ্ঠ বিচারের পরামর্শে স্বামী তার স্ত্রী রিনা আকতারকে নগদ ৬ লক্ষ টাকা ৫/০৬/২০২০ তারিখে পরিশোধ করে দিতে বলে । এতে স্বামী মকছুদ মিয়া স্থানীয় ইউপি মেম্বারের উপযুক্ত বিচারে রাজি হয়।

জনাব মকছুদ মিয়ার ভাষ্যে-
দৈলার পাড়ার স্থানীয় দাঙ্গাবাজ ও দালালবাজ জনাব আজম খাঁন, আমার স্ত্রী রিনা আকতারের সাথে খুব একটা সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে আমাকে মেরে পেলার হুমকি দেয়। এমনকি কয়েকদিন আগে জনাব আজম খাঁন (আজম হা) তার শক্তিদ্বারা আমার ঘর দখল করতে আসে। তাতে আমার স্ত্রী রিনা আকতার দালালবাজ ও দাঙ্গাবাজ আজম খানের পক্ষ হয়ে আমার ঘর দখল করতে বলে।
আজম খান আমাকে হুমকি দিয়ে বলে, যদি আমার ঘর রিনা আক্তারের নামে লিখে না দিয় দুনিয়া থেকে আমাকে বিদায় করে দেবে।
এতে ভয় পেয়ে স্থানীয় মেম্বার সৈয়দ কবিরের কাছে জানের নিরাপত্তা লাভ করি আমি। এতে মেম্বার সৈয়দ কবির আমাকে কঠোর নিরাপত্তা দেয়।

স্থানীয় মেম্বার সৈয়দ কবিরের বিচার অমান্যতা করে ০৫/০৬;২০২০ তারিখে আগের মতো লাঠি, লোহার রড়, দিয়ে মকছুদ মিয়া ও তার বাবা মা ভাইদের কে আঘাত করে। এবং শারীরিকভাবে নির্য্যাতন করে। এবং আমার মা বাবা ভাইকে মারধর করে, স্থানীয় দালালবাজ ও দাঙ্গাবাজ জনাব আজম খান (আজম হা) ও তার তিন পুত্র ফয়সাল (২৫) নিশান(২৮) মিশাল সহ সাঙ্গপাঙ্গ।
আজম খান ও তার তিনপুত্র সহ সাঙ্গপাঙ্গ থেকে আমাদেরকে রক্ষা করার মতো ভয়ে কেও এগিয়ে আসেনা।
এমতাবস্থায় স্থানীয় মেম্বার সৈয়দ কবির মারধর হচ্ছে জানতে পেরে এগিয়ে আসে। পরে দাঙ্গাবাজ আজম৷ খান ও তার তিনপু্ত্রসহ সাঙ্গপাঙ্গরা মেম্বার সৈয়দ কবিরকে হেয়পন্য করে ও তার বিচারকে অগ্রাহ্য করে।

স্থানীয় লোকজনের ভাষ্যে-
জনাব আজম খান একজন বড় দালাল ও দাঙ্গাবাজ। সে গরীব অশহায়দের নির্য্যাতন করে।
মানুষের সম্পদ জোরজবরদস্তি করে লুটতরাজ করে।
ভাই ভাই ঝগড়াঝাটি বাজিয়ে দেয়। সে একজন নারী লোভী। এলাকায় তার অনেক কুকর্ম আছে। সে তার পুত্রদের শক্তি দেখিয়ে দাঙ্গাবাজ করে। মানুষের অধিক জায়গায় তার শক্তির দখলে। সে একজন ডাকাত, ছিনতাইকারী,ভদ্রমুকুধারী।
মহেশখালী থানায় তার অনেক মামলা আছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com