Logo
শিরেোনাম ::
‘পাইলট ট্রেনিং-৬ এয়ারক্রাফট’ স্থাপন করলো ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম মহানগর সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাসির উদ্দিন নাসিরের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি বাবা দিবসে বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবার কাছে কন্যার খোলা চিঠি শাহজাদপুরে কোটি টাকায় ২ কিলো রাস্তায় মাটি ভরাট -১৫ হাজার মানুষের চলাচলে চরম দূর্ভোগ করোনা রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃসবুজ মানবাধিকার ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ সিলেট বিভাগীয় কমিটি গঠ কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে ভেজাল বিটুমিন তৈরি কারখানায় অভিযান মালিক সহ ২জনকে কারাদন্ড এ্যাডভোকেট এ এম মোয়াজ্জেম হোসেন’র মৃত্যু বার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের শ্রদ্ধা নিবেদন পটিয়া জিরি ইউনিয়নে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারের পাশে কেন্দ্রীয় নেতা বদিউল আলম প্লাস্টিক বর্জ্য সামুদ্রিক ও জলজ জীবনের সবচেয়ে বড় হুমকি

আর্তমানবতার সেবায় জেলা পরিষদ সদস্য মো: মশিউর রহমান রিপন

সাখাওয়াত লিমন / ২৫৮ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ২৪ মে, ২০২০

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধিঃ সারা বিশ্বে “COVID 19 করোনা ভাইরাস” মহামারী আকার ধারণ করেছে। করোনা ভাইরাসটি ধীরে ধীরে আমাদের দেশেও ছরিয়ে পরছে। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে সারাদেশে সরকারী ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে এবং সারাদেশে সকল প্রকার ব্যাবসা বানিজ্য বন্ধ রাখা সহ সর্বসাধারণকে ঘরে থাকার জন্য সরকারী নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে, যে কারনে সবচেয়ে বেশী দুর্ভোগে পরেছেন দেশের অসহায় দরিদ্র, খেটে খাওয়া সাধারন নিম্ন আয়ের মানুষ। প্রানঘাতী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে আর্তমানবতার সেবায় এগিয়ে আসেন মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ সদস্য রোটারিয়ান জনাব, মশিউর রহমান রিপন।

 

বর্তমান এই করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকেই তার নির্বাচনী এলাকা শ্রীমঙ্গল উপজেলা সহ মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন এলাকায় তার নিজ উদ্যোগে ও নিজ সংঘঠন সেতুবন্ধন সমাজ কল্যান সংস্থার মাধ্যমে নিম্ন আয়ের কর্মহীন, অসহায়, দরিদ্র সাধারন মানুষের মাঝে খাবার সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছেন তিনি।
উপজেলার বিভিন্ন এলকায় তিনি প্রতিনিয়ত মাক্স এবং ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে দিন রাত ছুটে যাচ্ছেন ঐসমস্ত কর্মহীন অসহায় ও অনাহারী মানুষদের মাঝে।

এ পর্যন্ত তিনি ব্যাক্তিগত উদ্যোগে এবং তার নিজ সংগঠন “সেতুবন্ধন সমাজ কল্যান সংস্থার” মাধ্যমে প্রায় (১০০০) এক হাজারের অধিক দুস্থ ও অসহায় কর্মহীনদের মাঝে মাক্স ও বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে প্রকৃত সময় উপযোগী তার এই মহতী উদ্যোগের জন্য মৌলভীবাজার জেলা ও উপজেলা প্রশাসন সহ স্থানীয়দের কাছে তিনি অত্যান্ত প্রশংসনীয় হয়ে উঠেছেন এবং অন্যরাও এখন ব্যাক্তিগত উদ্যোগে ও বিভিন্ন সংগঠনের মাধ্যমে অসহায়দের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরনে এগিয়ে আসছেন।

জেলা পরিষদ সদস্য জনাব, মশিউর রহমান রিপন বলেন, দেশের বর্তমান “করোনা” পরিস্থিতিতে দুস্থ অসহায় খেটে খাওয়া কর্মহীন মানুষজন খুবই কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন, তাই সমাজের সকল বিত্তবানদের উচিত ঐসমস্থ অসহায় কর্মহীন মানুষদের পাশে দাঁড়ানো। আমি বিত্তবান নই, তবুও মহান আল্লাহ সুবহানাতায়ালা আমাকে যতটুকু তৌফিক দিয়েছেন আমি আমার ইমানি দ্বায়িত্ব হিসাবে সাধ্যমত অসহায় কর্মহীন মানুষদের পাশে থাকার চেষ্টা করছি,
আমি জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের সাধারন খেটে খাওয়া বর্তমানে কর্মহীন মানুষদের একটি তালিকা তৈরি করেছি এবং উক্ত তালিকা অনুযায়ী তাদের ঘরে ঘরে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছি, যাতে তারা নিজেদের ঘরে নিরাপদে থাকতে পারেন, এবং তাদেরকে সতর্ক করছি যে বিশেষ প্রয়োজন ব্যাথিত তারা যেন ঘর থেকে বাহির না হন। শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রশাসন, শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ ও RAB-9 আমাকে উক্ত ত্রাণ বিতরন কার্যক্রমে সার্বিক সহযোগীতা করেছেন, তাই প্রশাসনের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

 

এছাড়াও তিনি বলেন, স্থানীয় সরকার বিভাগের নির্দেশনা মোতাবেক মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ সমগ্র জেলায় প্রায় ৫০০০(পাঁচ হাজার) সাধারন মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে। জেলা পরিষদের মাননীয় চেয়ারম্যান মহোদয়ের নির্দেশে ইতিমধ্যেই সম্মানিত সকল জেলা পরিষদ সদস্য বৃন্দ তাদের নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকা হতে কিছু অসহায় নিম্ন আয়ের কর্মহীনদের মধ্যে যারা এখনও (সরকারি বা বেসরকারি) কোন ত্রান সহায়তা পাননি, তাদেরকে বাছাই করে তালিকা তৈরির কাজ সম্পন্ন করেছেন। খুব শিগ্রই তালিকা অনুযায়ী বিতরন কার্যক্রম শুরু হবে বলে তিনি জানান।

জনাব, মশিউর রহমান আরও জানান যে,
সমাজের কিছু মধ্যবৃত্ত পরিবার রয়েছে যারা খুব কষ্টে আছেন, কিন্তু লজ্জায় কারও কাছে তা প্রকাশ করতে পরছেননা, এমন কেউ যদি যোগাযোগ করেন তাহলে তিনি তার নাম পরিচয় গোপন রেখে বাড়িতে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌছেঁ দিয়ে আসবেন। করোনা ভাইরাসের কারনে জেলার পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত তার এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান।

তিনি দীর্ঘদিন যাবত অসহায় সহজ সরল ও দুঃখী মানুষের পাশে থেকে মানব সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। সুশীল সমাজে রয়েছে উনার বেশ সুনাম উপজেলার ৫নং কালাপুর ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের মৃত আলহাজ্ব মোঃ হাবিবুর রহমানের ২য় পুত্র মো: মশিউর রহমান রিপন। পেশায় তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী। নিজ এলাকার মসজিদ, মাদ্রাসা, ওয়াজ মাহফিল, এতিমখানা ও মিসকিনদের প্রতিনিয়ত আর্থিকভাবে সাহায্য দিয়ে আসছেন তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com